বাংলাদেশ ক্বিরাত ইন্সটিটিউট/ معهد القراءات بنغلاديش/Institute of Quranic Science and Phonetics Bangladesh” ১৯৭১ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের সর্বপ্রথম ও একমাত্র স্বতন্ত্র ‘ইলমে ক্বিরাতের’ প্রতিষ্ঠান।

উপমহাদেশের প্রসিদ্ধ আলেমে দ্বীন, ওলিকুলের শিরোমণি হযরত মাওলানা ক্বারী মুহাম্মাদুল্লাহ হাফেজ্জি হুযুর (রহ.) এবং প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন, মুফতি দীন মুহাম্মাদ খান (রহ.) উভয়েই স্বপ্ন দেখেছিলেন বাংলাদেশের প্রতিটি অঞ্চলে প্রতিটি ঘরে বিশুদ্ধ কুরআন তিলাওয়াতের আওয়াজ পৌঁছানোর মাধ্যমে শুদ্ধরূপে এর শিক্ষা দেওয়া।

আরও

আন্তর্জাতিক মিলাদুন্নবী(সঃ) সম্মেলন উদ্ভোধন করলেন থাইল্যান্ড এর রাজা মাহা ভাজিরালংকর্ণ

এপ্রিল 6, 2019
গত ৩ এপ্রিল থাইল্যান্ডের ব্যাংককে অনুষ্ঠিত হলো থাইল্যান্ডের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ক্বিরাত সম্মেলন 'আন্তর্জাতিক মিলাদুন্নবী (সঃ) সম্মেলন-২০১৯'। উক্ত সম্মেলন উদ্ভোধন করেন

  View More

আন্তর্জাতিক মিলাদুন্নবী(সঃ) সম্মেলন উদ্ভোধন করলেন থাইল্যান্ড এর রাজা মাহা ভাজিরালংকর্ণ

 এপ্রিল 6, 2019      Dhaka

গত ৩ এপ্রিল থাইল্যান্ডের ব্যাংককে অনুষ্ঠিত হলো থাইল্যান্ডের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ ক্বিরাত সম্মেলন ‘আন্তর্জাতিক মিলাদুন্নবী (সঃ) সম্মেলন-২০১৯’। উক্ত সম্মেলন উদ্ভোধন করেন থাইল্যান্ডের রাজা মাহা ভাজিরালংকর্ণ (রাজা রামা দশম)

উক্ত সম্মেলনে প্রধান আকর্ষণ হিসেবে অংশগ্রহন করেন বর্তমান বিশ্বের সুপ্রসিদ্ধ ২জন ক্বারী, মিসরের শাইখ ডাঃ আহমাদ আহমাদ নাঈনা এবং বাংলাদেশের শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আযহারী

শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আযহারী ‘আন্তর্জাতিক কুরআন তিলাওয়াত সংস্থা(ইক্বরা)’ এর সভাপতি, বাংলাদেশের ‘শাইখুল কুররা’ এবং “মা’হাদুল ক্বিরাত বাংলাদেশের” পরিচালক।

শাইখ ডাঃ আহমাদ আহমাদ নাঈনা আরব লীগ কর্তৃক পরিচালিত বিশ্বের আন্তর্জাতিকভাবে প্রসিদ্ধ ক্বারীদের সংগঠন ‘ইত্তেহাদুল আরাবী ওয়াদ-দুয়ালী লি-কুররা-ইল-কুরানিল কারীম'(ইত্তেহাদুল কুররা আল-আলামিয়া) এর সভাপতি এবং ‘আন্তর্জাতিক কুরআন তিলাওয়াত সংস্থা(ইক্বরা)’ এর আন্তর্জাতিক মহাসচিব।

উক্ত সম্মেলনে আরও অংশগ্রহন করেন ব্রুনাই, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, মালয়েশিয়া, মায়ানমার, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনামসহ মোট ১২ দেশের প্রতিনিধিগন। এছারাও বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতগণ, কূটনীতিকবৃন্দ, থাইল্যান্ডের ওলামাগণ, মন্ত্রীবর্গ, বিমানবাহিনী, সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ সহ বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী মানুষগণ উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলনে বক্তব্যে থাই রাজা এই সম্মেলন আয়োজনের গুরুত্বারোপ করেন এবং সম্মেলনে আগত বিদেশি মেহমানদের প্রশংসা করেন।

থাই রাজার বক্তব্যের পর সম্মিলিত না’ত এ রাসুল (সঃ) পরিবেশিত হয় এবং দু’আ অনুষ্ঠিত হয় যেখানে থাই রাজা দাঁড়িয়ে সম্মিলিত মুনাজাতে অংশ নেন।

দু’আ শেষে তিলাওয়াত পরিবেশন করেন মিসরের শাইখ ডাঃ আহমাদ আহমাদ নাঈনা এবং বাংলাদেশের শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আযহারী। তিলাওয়াত শেষে তাদের উভয়কেই সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আযহারী একমাত্র বাংলাদেশী যিনি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন ও বিভিন্ন দেশের বাদশাহ’র দাওয়াতে সফর করে থাকেন। তিনি ঐতিহাসিক ৬ দফা আন্দোলন ও মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশের বিশুদ্ধ কুরআন তিলাওয়াত ও ক্বিরাত এর পথ প্রদর্শক, বাংলাদেশের সাবেক শাইখুল কুররা, ইমামুল কুররা হযরত ক্বারী মুহাম্মদ ইউসুফ (রহ.)-এর বড় ছেলে।

বিশ্ববিখ্যাত ক্বারীবৃন্দের “মা’হাদুল ক্বিরাত বাংলাদেশ” পরিদর্শন

মার্চ 23, 2019
১৯তম আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন বাংলাদেশ-২০১৯ এ আগত ক্বারীবৃন্দ গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ক্বিরাত ইন্সটিটিউট পরিদর্শনে আসেন। তাদের মধ্যে ছিলেন- মিশরের

  View More

বিশ্ববিখ্যাত ক্বারীবৃন্দের “মা’হাদুল ক্বিরাত বাংলাদেশ” পরিদর্শন

 মার্চ 23, 2019      Dhaka

১৯তম আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন বাংলাদেশ-২০১৯ এ আগত ক্বারীবৃন্দ গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ক্বিরাত ইন্সটিটিউট পরিদর্শনে আসেন। তাদের মধ্যে ছিলেন-

  • মিশরের ক্বারী শাইখ ইয়াসির শারকাওয়ী
  • দক্ষিন আফ্রিকার ক্বারী আব্দুর রহমান সা’দিয়ান
  • তুরস্কের শাইখ ইয়াশার জুহাদার
  • ইরানের ক্বারী হামীদ শাকেরনেজাদ এবং
  • ফিলিপাইনের ক্বারী নো’মান পিম্বায়াবায়া

তারা ছাত্রদের উদ্দেশ্যে গুরুত্বপূর্ণ নসিহত পেশ করেন এবং বিশুদ্ধ কুরআন তিলাওয়াতের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

 

"خيركم من تعلم القرآن وعلمه"-'The best amongst you are the ones who learn Quran and teach it to others'